Preview
প্রশ্ন করুন

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

আড়াল থেকেই বলছি  সীমানাহীন গন্তব্যে এখনো হাঁটছি একাকিত্বের লাঠি হাতে ....

মহাগুরু

ডাঃ জাকির নায়েক এর লিখা.. কিছু লোক আছে যারা আরবী বর্ণমালাগুলোর নির্দিষ্ট মান দিয়ে যোগফল বের করে। তারপর ঐ মান দিয়ে তারা কোনো আয়াত বা দোয়া বা কোনো নাম নির্দেশ করার চেষ্টা করে। উদাহরণ দিয়ে বলা যায় “বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম”-এর ‘বা’, ‘আলিফ’, ‘সিন’ এ বর্ণমালাগুলোর মান বসিয়ে তার বের করেছেন ৭৮৬ আবার ৯২ দিয়ে বুঝান মুহাম্মাদ [ﷺ] এভাবে আরো অনেক কিছু। কিন্তু এমন ব্যবহার ক্বুর‘আন বা সহীহ হাদীসের কোথাও পাওয়া যায় না। কিছু লোক তর্ক করে যে, আমরা যখন আরবি বর্ণমালা না পাই, তখন দাওয়াতপত্র ভিজিটিং কার্ড ইত্যাদি ছাপাতে সংখ্যাগুলো লিখি। কিন্তু আমার কথা হলো, আপনি আরবী শব্দটি ইংরেজিতে বানান করে লিখেন। আর যদি মনে করেন সবাই বুঝবেনা তাহলে অনুবাদ লিখতে পারেন। যেমন “পরম করুনাময় দাতা ও দয়ালু আল্লাহ্‌র নামে।” এত সহজ উপায় থাকতে এমন কঠিন ও বিদঘুটে পদ্ধতির প্রয়োজন কি? আসলে বিভিন্ন সংখ্যা নিয়ে বিভিন্ন ধারনা আমাদের সমাজে দেখা যায়। যেমন পশ্চিমা সমাজে ১৩ সংখ্যাটিকে অপয়া ভাবা হয়। তারা বলে ‘আনলাকি থার্টিন’। আবার তারা ৬৬৬ দ্বারা বুঝায় শয়তান। আমাদের ভারতীয় উপমহাদেশে চোর, বাটপার, ফটকাবাজদের ৪২০ বলা হয়। এর অবশ্য কারণ আছে, ভারতীয় উপমহাদেশের সবদেশেই যদি কোন চোর বাটপার ধরা হয় তাহলে তাকে যে ধারায় শাস্তি দেয়া হয় সেটি পেনাল কোডের ৪২০ নং ধারায় বর্ণীত। তাই যদিও কারণ আছে তবুও অনেকে না বুঝেই বলে। যারা বলেন যে বিভিন্ন বর্ণের অবস্থানগত মান যোগ করে ঐ শব্দের প্রতিনিধিত্বকারী সংখ্যা বের করেছেন, তাদের আমি সমর্থন করি না। কারন, একই মান দিতে পারে এমন সংখ্যা দুটি শব্দের প্রতিনিধিত্ব করতে পারে। যার একটি ভালো অন্যটি খারাপ। সে ক্ষেত্রে আপনি কোনটি গ্রহন করেবেন? উদাহরণ দেই, যদি বলি ইংরেজি বর্ণ B এর মান ১ এবং A এর মান ৭ আর ধরুন D এর মান ৪। এখন যোগ করলে আমরা পাই ১২। অর্থাৎ BAD (খারাপ)এর সংখ্যাগত মান পেলাম ১২। এখন G এর মান ২, O এর মান ৩, D এর মান ৪ ধরলে GOOD এর মান কত? দেখুন ২+৩+৩+৪=১২। অর্থাৎ (GOOD)ভালো এর সংখ্যাগত মান পেলাম ১২। এখন আমি ১২ কে ভালো বা মন্দ কোনটা নির্দেশক বলব? যদি প্রথমটি মেনে বলি ১২ একটি মন্দ নির্দেশক তখন পরে আবার দেখলাম সংখ্যাটি যে মান ধরে নেয়া হয়েছে তা ভালকেও নির্দেশ করে। তাই যারা ‘বিসমিল্লাহ্‌’ কে ৭৮৬ দ্বারা প্রকাশ করেন তাদেরকে বলি, এমন অনেক শব্দ পাবেন যেগুলোর বর্ণের মান যোগ করলে ৭৮৬ পাওয়া যাবে।..

মো:আ:মোতালিব  আসুন রাজনীতিকে ঘৃণা না করে,আমরা সকলে ...সকলের হাতে হাত রেখে সুস্থ রাজনীতি করি-

মহাগুরু

ধন্যবাদ.............. আরবী অক্ষরের (হরফের) গণিতের মান দিয়ে কোড নম্বর লিখার পদ্ধতিটির আবিষ্কারক হচ্ছেন গ্রিসের প্রখ্যাত গণিত-বিশারদ (জ্যামিতিক) পিথাগোরাস। তিনি ছিলেন ইয়াহুদী। মুসলিমের প্রকাশ্য শত্রু। আরবি অক্ষরের মানের হিসাব কষে বিধর্মী কর্তৃক “বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম” এর যে সংখ্যা বা মান নির্ধারণ করা হয়েছে তা হলো ৭৮৬। রাসূল (সাঃ) তার জীবদ্দশায় “বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম” এর সংখ্যা নির্ণয়ক কোন মান বলে যাননি। এ ছারা তিনি তার সাহাবীগণকেও লিখতে অনুমোদনও দেননি। সুতরাং “বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম” এর পরিবর্তে ৭৮৬ সংখ্যাটির ব্যবহার করা নি:সন্দেহে একটি বিদ‘আত। এবার আসুন, লক্ষ্য করি যে, কেন ৭৮৬ লেখা হচ্ছে। পিথাগোরাসের প্রবর্তিত অক্ষরের মান তথা ‘আবজাদ’ মান বসিয়ে দেখা যাক بِّسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ “বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম” এর মান কত হয়? ب س م ا ل ل ه ا ل ر ح ৮ ২০০ ৩০ ১ ৫ ৩০ ৩০ ১ ৪০ ৬০ ২ م ن ا ل ر ح ى م ৪০ ১০ ৮ ২০০ ৩০ ১ ৫০ ৪০ অর্থাৎ ২+৬০+৪০+১+৩০+৩০+৫+১+৩০+২০০+৮+৪০+৫০+১+৩০+২০০+৮+১০+৪০=৭৮৬ পিথাগোরাসের আবিষ্কৃত আরবি অক্ষরের গাণিতিক মান বসিয়ে “বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম” এর কোড নম্বর পাওয়া গেল ৭৮৬ । আবার আপনারা আরবিতে “হরে কৃষ্ণা” هرىكرشنا লিখে উহার আবজাদ মান প্রয়োগ করুন। দেখতে পাবেন যে, এর কোড নম্বর বা আবজাদ মান দাড়াচ্ছে ৭৮৬। ه ر ى ك ر ش ن ا ১ ৫০ ৩০০ ২০০ ২০ ১০ ২০০ ৫ =৭৮৬ অর্থাৎ ৫+২০০+১০+২০+২০০+৩০০+৫০+১=৭৮৬ এবার চিন্তা করে দেখুন, আল্লাহকে স্মরণ করতে গিয়ে না বুঝে বিধর্মীদের সবক নেয়া “আবজাদ” মান ব্যবহার করে আমরা নিজেদের অজান্তে কত বড় পাপের কাজ করে যাচ্ছি। অতএব সাবধান থাকুন এবং যাছাই-বাছাই না করে সংখ্যা তত্ত্বের হিসাব না জেনে দ্বীনি ব্যাপারে সংখ্যার ব্যবহার করবেন না, বরং আরবি শব্দ ব্যবহার করুন নতুবা নিজ ভাষায় লিখুন। মনে রাখবেন, রসূল (সঃ) বলেছেন- সাওয়াবের উদ্দেশে দ্বীনের মধ্যে সংযোজিত প্রতিটি নতুন বিষয়ই বিদ‘আত, প্রতিটি বিদ‘আতই ভ্রষ্টতা এবং প্রতিটি ভ্রষ্টতার পরিণাম জাহান্নাম। (মুসলিম, মিশকাত-১৪১, নাসাঈ-১৫৭৭) সুতরং বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম এর জায়গায় ৭৮৬ লেখা একদম ঠিক না,( সংগ্রহ করা )

তোফায়েল আহমদ  প্রতিনিয়তই নিজেকে পরিবর্তনের অদম্য ইচ্ছে লালন করি। কিন্তু,পরিবর্তন! সেতো আকাশচুম্বী; ধরা দিয়েও ধরা দিচ্ছে না ...

মহাগুরু

যেসব ক্ষেত্রে “বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম” লেখা মাসনূন বা মুস্তাহাব সেসব ক্ষেত্রে অনেকেই “৭৮৬” লিখে থাকে। আবজাদের হিসাবে এটা “বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম” এর অক্ষরগুলোর সংখ্যামানের সমষ্টি। কারো কারো ধারনা আছে যে, এই সংখ্যাগুলো লিখলে বা উচ্চারণ করলে “বিসমিল্লাহ” লেখার বা বলার কাজ হয়ে যাবে। এটা একটি ভুল ধারণা। মুখে “বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম” পাঠ করে যদি এই অংকগুলো লেখা হয় তাহলে সেটা “বিসমিল্লাহ”র চিহ্ন গণ্য করা যেতে পারে। কিন্তু সরাসরি এই অংকটাকে “বিসমিল্লাহ”র বিকল্প মনে করা সম্পূর্ণ ভুল। ---------------------------------------------------------------------------------------------- আরবী অক্ষরের (হরফের) গণিতের মান দিয়ে কোড নম্বর লিখার পদ্ধতিটির আবিষ্কারক হচ্ছেন গ্রিসের প্রখ্যাত গণিত-বিশারদ (জ্যামিতিক) পিথাগোরাস। তিনি ছিলেন ইয়াহুদী। মুসলিমের প্রকাশ্য শত্রু। আরবি অক্ষরের মানের হিসাব কষে বিধর্মী কর্তৃক “বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম” এর যে সংখ্যা বা মান নির্ধারণ করা হয়েছে তা হলো ৭৮৬। --------------------------------------------------------------------------------------------- রাসূল (স) তার জীবদ্দশায় “বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম” এর সংখ্যা নির্ণয়ক কোন মান লিখে যাননি। এ ছাড়া তিনি তার সাহাবীগণ (রা) এদের কাউকে লিখতে অনুমোদনও দেননি। সুতরাং “বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম” এর পরিবর্তে ৭৮৬ সংখ্যাটির ব্যবহার করা নি:সন্দেহে একটি বিদ‘আত। (সংগৃহীত)

গাজী আজিজ  বাংলাদেশের বোকাসোকা একজন মানুষ। ।

মহাগুরু

উদ্ভট মাথার খেয়াল। এর কোন ভিত্তি নাই। এটাকে এক রকম প্রতারনা বলা যায়।

আল নোমান খান  জীবন যুদ্ধে হেরে যেতে চাইনা, তাই যুদ্ধ করে যাচ্ছি

গুরু

বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম NO ALTERNATE

মিকু  simple

মহাগুরু

এই ব্যাপারে দলিল নেই। লেখা যাবে না। সবাই ভালো বলেছেন।

Ahetesham Uddin  কমপিউটার জগতের মাসুম ভাই

গুরু

বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম এর পরিবর্তে ৭৮৬ লেখা কোন দলিল ইসলামে নাই। এটি ভিক্তিহীন আবিষ্কার।

Ahsan Kabir Chowdhury  পৃথিবীর সবচাইতে সুখী মানুষ

গুরু

বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম এর পরিবর্তে ৭৮৬ লেখা সঠিক নয়

নাহিদা সুলতানা  ফেইসবুক : https://www.facebook.com/nahida.sultana.33671

পন্ডিত


অথবা,