Preview
প্রশ্ন করুন
রিলেটেড কিছু বিষয়

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

আমির  

মহাগুরু

উপকরণ ও পরিমানঃ – মুরগীর মাংস, ১ কেজি – বাসমতী চাল, ১ কেজি – নূতন গোল আলু, ২৫০/৩০০ গ্রাম – পেঁয়াজ কুঁচি, হাফ কাপ – আদা বাটা, দেড় টেবিল চামচ – রসুন বাটা, দেড় টেবিল চামচ – জিরা গুড়া, ১ চা চামচ – কাঁচা মরিচ বাটা, দুই টেবিল চামচ (ঝাল বুঝে) – গোল মরিচ বাটা, আধা চা চামচ – জয়ত্রী বাটা, হাফ চা চামচ – জয়ফল বাটা, এক চিমটি – বাদাম বাটা, হাফ কাপ বা তার কম (কাজু বাদাম বাটা হলেও চলবে) – গরম মশলা (লবঙ্গ কয়েকটা, এলাচি কয়েকটা, দারুচিনি কয়েক পিস) – লবন, পরিমান মত – চিনি, হাফ চা চামচ – কিসমিস, দুই টেবিল চামচ – খেজুর, স্লাইস করে কাটা, একটা – দুধ, দেড় কাপ – কয়েকটা আস্ত কাঁচা মরিচ (বুঝে) – তেল, পনে দুই কাপ (বাসমতী চালে তেল একটু বেশি লাগে, তেল কম হলে বাসমতী চাল খসখসে দেখায়, স্বাদ কমে যায়, দেশী পোলাউ চালে তেল কম দিলেও চলে) – ঘি, তিন চামচ (ঘি না থাকলে নাই) – পানি (গরম হলে ভাল, রান্না শুরুর আগে কিছু পানি গরম করে রেখে দিতে পারেন তবে না হলে নাই, ব্যাপার না!) * নন স্টিকি পাত্রে রান্নাই উত্তম। সাধারন সিলভারের পাত্রে রান্নায় আরো বেশি মনোযোগী হতে হবে এবং আগুন সব সময়েই মাঝারি আঁচে রাখতে হবে। প্রস্তুত প্রনালীঃ ১। চাল প্রিপারেশনবাসমতী চাল ধুয়ে আধা ঘন্টার জন্য পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। ২। মশলা প্রিপারেশনআপনি চাইলে গোল মরিচ, জয়ত্রী, জয়ফল, বাদাম, গরম মশলা (লঙ্গ, এলাচি কয়েকটা, দারুচিনি কয়েক পিস) একসাথে সামান্য ভেজে তার পর বেটে নিতে পারেন (এতে স্বাদ বাড়ে তবে সেই স্বাদ বুঝতে হলে জিহব্বার উপর আস্তা রাখতে হবে। হা হা হা)। আর আলাদা আলাদা করে বাটা থাকলেতো কথাই নেই! মারহারা! ৩। আলু প্রিপারেশনআলু ছিলে হাফ সিদ্ধ করে সামান্য তেলে আলু গুলোকে ভেজে রাখতে হবে। ৪। মুল রান্নাঃযে পাত্রে (পাত্র সিলেকশনে খেয়াল রাখতে হবে, সব কিছু মিলিয়ে পাত্রে কত কেজি জায়গা হয় তা আগেই বুঝে নিতে হবে) বিরিয়ানী রান্না করেবেন তাতে মুরগীর মাংস দিন এবং তেল সহ উপরে উল্লেখিত সব মশলা, ভেজষ এবং লবন/চিনি দিয়ে ভাল করে মাখিয়ে নিন। (দুধ ছাড়া)হাফ কাপ পানি সহ এবার চুলায় মাধ্যম আঁচে পাত্রে ঢাকনা দিয়ে মিনিট ২০ জ্বাল দিতে থাকুন। মাঝে মাঝে নাড়িয়ে দিতে ভুলবেন না।ক এই অবস্থায় এসে যাবে। এখানে বলে রাখি দেশী মুরগী হলে আরো একটু পানি দিতে হত।এবার ভেজে রাখা আলু গুলো দিয়ে দিন।এবার দুধ দিন এবং ভাল করে মিশিয়ে কয়েক মিনিট জ্বাল দিন।এবার বাসমতী চাল দিয়ে দিন।

আড়াল থেকেই বলছি  সীমানাহীন গন্তব্যে এখনো হাঁটছি একাকিত্বের লাঠি হাতে ....

মহাগুরু

১) বাসমতী চালে শাহী বিফ বিরিয়ানির দারুণ সহজ রেসিপি: http://bdsob.com/v.php?id=4207 ২) ''কাচ্চি বিরিয়ানি'' http://bdsob.com/v.php?id=6448 ৩) চিকেন বিরিয়ানি http://www.ebanglarecipe.com/421 ৪) রেসিপি : মাটন বিরিয়ানি http://snacksbd.blogspot.com/2014/03/blog-post_7966.html অনেক গুলো রেসিপির সম্পূর্ণ প্রণালী+উপকরণ মাত্র ২০০০ ওয়ার্ড এর মধ্যে লিখা সম্ভব না ..তাই আপনাকে জাস্ট লিংক গুলো দিলাম..

মো:আ:মোতালিব  আসুন রাজনীতিকে ঘৃণা না করে,আমরা সকলে ...সকলের হাতে হাত রেখে সুস্থ রাজনীতি করি-

মহাগুরু

ধন্যবাদ.............. কাশ্মীরি বিরিয়ানির রেসিপি উপকরণ- পোলাওর চাল রান্নার জন্য যা যা লাগবে বাসমতি চাল/পোলাওর চাল ২ কাপ। (চালটা ধুয়ে কুসুম গরম পানি দিয়ে ১০/১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখবেন) পিঁয়াজ কুচি– ১ কাপ ঘি- ১/৩ কাপ মুরগি রান্নার জন্য যা যা লাগবে মুরগি ১ টি হাফ কেজির একটু বেশী (পিস করে নেবেন) তেল- ১/৩ কাপ পিঁয়াজ বাটা -২ টে চামচ পিঁয়াজ কুঁচি -১/৩ কাপ আদা বাটা-১ চা চামচ রসুন বাটা- ১চা চামচ চিংড়ী মাছ – ১/৩ কাপ আলু কিউব করে কাটা – ১ কাপ গাজর গ্রেট করা – ১ কাপ টক দই – ১/৩ কাপ ধনে গুঁড়া – ২টে চামচ জিরা গুঁড়া- ১ চা চামচ লবণ স্বাদ মতো টমাটো সস – ১ টে চামচ পাকা তেঁতুল – ১চা চামচ ।(কোন আচার ব্যবহার করা যাবে না) গুঁড়ো দুধ ১ টে চামচ লং- ৩/৪ টি এলাচ- ৩/৪ টি দারচিনি- ২ টুকরা তেজপাতা – ২/৩ টি প্রণালী প্রথমে মুরগি ধুয়ে সামান্য আদা, রসুন বাটা, লবণ,টক দই আর ১/৩ কাপ মতো পানি দিয়ে মুরগি সিদ্ধ করতে দিতে হবে। সিদ্ধ হয়ে এলে নামিয়ে রাখুন। যদি সিদ্ধ হওয়ার পর কিছু পানি রয়ে যায় তা ফেলে দিবেন না, রান্নাতে দরকার পড়বে। এবার চিংড়ী গুলো টমেটো সস আর সামান্য পানি দিয়ে সিদ্ধ করে নিন। পানি একদম শুকিয়ে ফেলুন এবার আলু গুলো সামান্য তেলে স্বাদ মতো লবণ,লাল মরিচ গুঁড়া,১ চিমটি হলুদ গুঁড়া,ধনে গুঁড়া দিয়ে অল্প আঁচে ভেজে নিন এখন সিদ্ধ করা মুরগি রান্না করতে হবে,প্রথমে পিঁয়াজ ভেঁজা হলে তাতে একে একে ধনে গুঁড়া,লবণ,জিরা গুঁড়া,গরম মশলা দিয়ে মাংস কষিয়ে নিন,কষানো হলে তেঁতুল দিন,দরকার পরলে সামান্য পানি দিতে পারেন,মুরগির ঝোল মাখা হয়ে আসলে পরিমাণ মতো লবণ দিন,আর শুকনো দুধ দিয়ে দিন,খুব বেশি ঝোল রাখবেন না এবার পোলাও রান্না করে নিন,চুলায় তেল গরম হলে পিঁয়াজ ভেজে তাতে চাল পানি ঝরিয়ে দিয়ে দিন, সাথে সামান্য লবণ দিন,মনে রাখবেন লবণ যেন বেশি না হয়ে যায় ২/৩ মিনিট চালটা কষিয়ে গাজর কুচি দিয়ে দিন আরো ১/২ মিমিনিট আবার কষান,চালে হাল্কা কুসুম পানি দিন,২কাপ চালে মোটামুটি আড়াই কাপ মত পানি লাগবে,পানিটা চালের পরিমাণ অনুযায়ী দেখে দেবেন চাল মোটামুটি সিদ্ধ হয়ে এলে উপর থেকে কিছু চাল নিয়ে নিন। এবার কিছু আলু দিন চালের মাঝে। সাথে রান্না করা মুরগির মাংস দিন অর্ধেকটা। এর উপর বাকি চাল দিয়ে বাকি আলু আর মাংস দিয়ে অল্প আঁচে ৩০/৪০ মিনিট চুলায় দমে রাখুন। হয়ে এলে নামিয়ে পরিবেশনের আগে চালটা উপর নিচে করে মিক্স করে নিন। ব্যস হয়ে গেলো মজাদার কাশ্মীরি বিরিয়ানি -

পরী  

গুরু

চিকেন বিরিয়ানি উপকরণ পোলাওর চাল ১ কেজি, হাড়বিহীন মুরগির মাংস ১ কেজি, পেঁয়াজবাটা ২ টেবিল চামচ, রসুনবাটা ১ টেবিল চামচ, আদাবাটা ৩ টেবিল চামচ, গরম মসলা, তেজপাতা ও গোলমরিচ গুঁড়া পরিমাণমতো, জয়ত্রীর গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, টকদই ২০০ গ্রাম, লবণ পরিমাণমতো, ঘি বা তেল পরিমাণমতো, পেঁয়াজ কুচি বড় ৪টি। প্রণালী প্রথমে একটি হাঁড়ি চুলায় বসিয়ে ওতে অর্ধেকটা ঘি গরম করে বিরিয়ানির জন্য পেঁয়াজ কুচি বাদামি করে ভেজে তুলে নিন। তারপর মাংসগুলোকে সব মসলা দিয়ে মাখিয়ে ঘি এর মধ্যে ছেড়ে দিতে হবে সামান্য কষে নিয়ে ১/২ চা চামচ লবণ দিয়ে পানি দিয়ে মাংস রান্না করে নিন। তারপর পোলাওর চাল ধুয়ে ঝরিয়ে নিন। অন্য একটি হাঁড়ি চুলোয় বসিযে ওতে তেল গরম করে নিন। তারপর তেজপাতা, গরম মসলা ছেড়ে দিন এবং পোলাওর চাল দিয়ে তাতে সামান্য লবণ দিন। পরিমাণমতো পানি দিয়ে পোলাও রান্না করা মাংসের উপর ছড়িয়ে দেবেন। এইভাবে সব মেশানো হলে একটু গোলাপ পানি ছিটিয়ে দিন। তৈরি হয়ে গেল চিকেন বিরিয়ানি। আপনার পছন্দানুযায়ী ডিশে সাজিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

গাজী আজিজ  বাংলাদেশের বোকাসোকা একজন মানুষ। ।

মহাগুরু

সহজে বিরিয়ানী উপকরণ: ১।মাংস- ২ কেজি ২।সুগন্ধি চাল- ১ কেজ়ি ৩।পিয়াজ- ১ কেজি ৪।টক দই- ২৫০গ্রাম ৫।দুধ- ১ লিটার তরল দুধ বা ২ কাপ গুড়া দুধ গোলানো ৬।ঘি-১/২ কাপ ৭।সয়াবিন তেল-২৫০ মিঃলিঃ ৮।চিনি-২ টেবিল চামচ ৯।গোলাপ জল-২ টেবিল চামচ ১০।কিসমিস-১/২ কাপ ১১।আলু বোখারা- ১০-১২টা ১২।কাচাঁ মরিচ- ১০-১৫ টি ১৩।লবন- পরিমান মত ১৪।বিরিয়ানি মশলা-২ প্যাকেট প্রনালীঃ পিয়াজ বেরেস্তা করে রাখুন ১ কাপ। বেরেস্তায় একটু চিনি দিয়ে গুড়া করে রেখে দিন।চাল ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন। মাংস ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন। এবার একটি কড়াইতে মাংস,পিয়াজ কুঁচি,টক দই,২কাপ দুধ, লবন ও রাধুনি বিরিয়ানি মসলা দিয়ে মাঝার প্রয়োজনমত পানি দিয়ে মাংস সেদ্ধ করুন। এবার অন্য হাঁড়িতে তেল গরম করে চাল দিয়ে ১০-১৫ মিনিট ভাজুন। এবার বাকী ২ কাপ দুধ,২ লিটার পানি ও লবন দিয়ে আঁচ বাড়িয়ে ঢেকে দিন। পানি শুকালে মাংস দিন। মাংস মিশিয়ে উপরে বেরেস্তা,কাচাঁমরিচ,প কুচিঁ,কিসমিস,আলু বোখারা,গোলাপ জল ও ঘি দিয়ে ঢেকে দিন। মাঝে ২/৩ বার হাড়িটা ঢাকনা বন্ধ অবস্থায় উপর নিচ ঝাকিয়ে নিন। এরপর বিরিয়ানি ভালমত মিশিয়ে কাটা শসা,রিং আকৃ্তির পিয়াজ ও লেবু দিয়ে পরিবেশন করুন।


অথবা,