Preview
প্রশ্ন করুন
রিলেটেড কিছু বিষয়

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

( ৪ টি উত্তর আছে )

( ৪,৯২২ বার দেখা হয়েছে)

দীপ্তি  আমি শান্ত, সাম্য, আহ্লাদী, মিশুক, পরিপাটি, গোছালো, খুব নরম মনের একজন সাধারণ মানুষ :)

মহাগুরু

কালিয়া শব্দের ভেতর লুকিয়ে আছে "কালো" শব্দটি l যে রান্নাটির ঝোল একটু গাড় এবং অল্প আঁচে কষাতে কষাতে কালচে রং ধারণ করে এবং পুরো রান্নাটায় একটা মশলা ভাজাড় ফ্লেভার থাকে, সেটিই আসলে কালিয়া l (যেমন: আপনারা গরুর মাংসের কালো ভুনা খান, ঠিক তেমনটাই) তবে কালিয়া শব্দটি বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বড় মাছে যেমন: রুই, কাতলা বা কার্প জাতীয় মাছের সাথেই বেশি যায় l কাতলা মাছের কালিয়ার রেসিপিঃ কালিয়া তৈরি করতে যা যা লাগবে:- # কাতলা মাছ ১ কেজি # পেঁয়াজ কুচা কোয়ার্টার কাপ # রসুন বাটা ২ টেবিল চামচ # আদা বাটা ২ টেবিল চামচ # জিরা বাটা ১ চা চামচ # হলুদ গুড়া ২ চা চামচ # মরিচ গুড়া ২ টেবিল চামচ # জিরা গুড়া ২ চা চামচ # গরম মশলা পরিমাণ মতো # টমেটো সস ২ টেবিল চামচ # জয়ফল, জয়ত্রী গুড়া ১ টেবিল চামচ # কাঁচা মরিচ ১০টি # লবণ স্বাদ অনুযায়ী # চিনি # তেল ও পানি রান্নার জন্য # সামান্য ঘি প্রণালী: মাছ ধুয়ে হলুদ-লবণ মাখিয়ে কড়া করে ভেজে নিন। তেল গরম করে গোটা জিরে ফোড়ন দিয়ে সব ধরনের বাটা মশলা, মরিচের গুড়া, হলুদের গুড়া দিয়ে মেখে চুলায় বসিয়ে দিতে হবে। ভালোভাবে কষতে হবে। যখন পানি শুকিয়ে আসবে তখন গুড়া মসল্লা, চিলি সস, টমেটো সস দিয়ে ভালো করে পোড়া পোড়া করে কষতে হবে। যেনো মশলাটা কালো হয়ে যায়। তখন সামান্য গরম পানি দিয়ে অল্প আঁচে দমে রাখতে হবে। মাঝে মাঝে নেড়ে দিতে হবে। যখন মশলা নরম হয়ে আসবে বা তেল ভেসে উঠবে তখন ভাজা মাছ কাঁচা মরিচ ও সামান্য জিরার গুড়া দিয়ে নামিয়ে ফেলতে হবে। উপরে সামান্য ঘি দিয়ে নামিয়ে নিন l

মো:আ:মোতালিব  আসুন রাজনীতিকে ঘৃণা না করে,আমরা সকলে ...সকলের হাতে হাত রেখে সুস্থ রাজনীতি করি-

মহাগুরু

ধন্যবাদ - সংক্ষেপে রান্নায় নতুনত্ত্ব ও ভিন্নতা আনতে এবং মজাদার সুসাধু করার প্রক্রিয়াকে কালিয়া বলে, কাতলা মাছের কালিয়া উপকরণ: কাতলা মাছ ৫ টুকরা,পেঁয়াজ বাটা ২ টেবিল-চামচ,আদা-রসুন বাটা ১ চা-চামচ,জিরা বাটা আধা চা-চামচ,ধনেগুঁড়া আধা চা-চামচ,মরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ,গরম মসলা গুঁড়া আধা চা-চামচ,কাজু বাদাম বাটা ১৪-১৫টি,টমেটো সস ২ টেবিল-চামচ,ময়দা ১ টেবিল-চামচ,ফেটানো ডিম অর্ধেকটা,আলু ডুমো করে কাটা ২টি (মাঝারি)কাঁচা মরিচ ফালি ৪-৫টি,লবণ স্বাদমতো,ঘি বা তেল প্রয়োজনমতো প্রণালি: কাতলা মাছ কেটে ও ধুয়ে তাতে হলুদ,মরিচ,আদা-রসুন বাটা,লবণ,ময়দা ও ফেটানো ডিম দিয়ে মাখিয়ে রাখতে হবে ৫ মিনিট,তারপর মাছগুলো ডুবোতেলে ভেজে তুলে রাখতে হবে,আলুগুলো মসলা মাখিয়ে ভেজে রাখতে হবে কড়াইয়ে ২ টেবিল-চামচ তেল ও ১ টেবিল-চামচ ঘি দিয়ে তাতে পেঁয়াজ বাটা,আদা-রসুন বাটা,জিরা বাটা,ধনে গুঁড়া,কাজু বাদাম বাটা,টমেটো সস দিয়ে কষিয়ে নিতে হবে,মসলা কষানো হলে ১ কাপ দুধ বা পানি দিয়ে তাতে ভাজা মাছ ও ভাজা আলু দিতে হবে,তেল ওপরে উঠে এলে গরম মসলা গুঁড়া ও কাঁচা মরিচ ছড়িয়ে দিয়ে নামিয়ে নিতে হবে,,,,,,,,,,,,,,,,,,

suronjona  আমি অতি সাধারন। নাম ছাড়া পরিচয় আর কোনো নেই যার!

জ্ঞানী

আগে জানতাম আলু দিয়ে মাছ, মাংসের ঝোল কে কালিয়া বলে। ছোটবেলায় মাংসের কালিয়ায় বড় বড় আলু ২ খন্ড করে দেয়া দেখেছি। এখন ভুনা কেও কালিয়া বলা হচ্ছে, ঝোলকেও কালিয়া বলা হচ্ছে, আলুর নাম গন্ধ নেই, সেটাকেও কালিয়া বলা হচ্ছে। কবে দেখবো মাছ ভাজিকেও কালিয়া বলা হচ্ছে! কালিয়া তু কাহা হ্যায় রে কালিয়া! :p

আমানুল্লাহ সরকার  নিজেকে আমি খুঁজে নিতে চাই নিজের মত করে।

মহাগুরু

কালিয়া বলতে একটি সুস্বাদু ও চমকপ্রদ রেসিপিকে বুঝানো হয়। বিভিন্ন ধরনের মাংস ও মাছ দিয়ে এই সুস্বাদু ও মজাদার কালিয়া রেসিপি তৈরী করা যায়। চলুন তাহলে কাতলা মাছের কালিয়া রেসিপি কিভাবে রান্না করবেন জেনে নেই। প্রয়োজনীয় উপকরণঃ বড় কাতলা মাছ ৫ টুকরা, তেজপাতা ২/৩টি, এলাচ ২/৩টি, দারুচিনি ২ টুকরা, জিরা বাটা ১ টেবিল চামচ, আদা বাটা আধা টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, টক দই ১ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো, কিশমিশ ৪/৫টি, তেল ১ কাপ ও চিনি ১ চা চামচ। প্রস্তুত প্রণালিঃ মাছ ধুয়ে হলুদ-লবণ মাখিয়ে ভেজে নিন। কড়াইতে তেল দিয়ে ২/৩টি তেজপাতা, গরম মশলা দিয়ে সব মশলা কষিয়ে নিন। সামান্য পানি দিন। টক দই দিয়ে কষিয়ে নিন। ভাজা মাছগুলো কষানো মশলায় দিয়ে আধা কাপ গরম পানি দিন। পাঁচ মিনিট পর ঝোল ঘন হলে কিশমিশ, কাঁচামরিচ, চিনি দিয়ে নামিয়ে ফেলুন।


অথবা,