Preview
প্রশ্ন করুন
রিলেটেড কিছু বিষয়

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

( ২ টি উত্তর আছে )

( ১৯,৭১১ বার দেখা হয়েছে)

দীপ্তি  আমি শান্ত, সাম্য, আহ্লাদী, মিশুক, পরিপাটি, গোছালো, খুব নরম মনের একজন সাধারণ মানুষ :)

মহাগুরু

হুম, আমার দাদী প্রায় সময় আমাদেরকে দুধের সাথে চিনির বদলে মধু মিশিয়ে দিতেন, বলতেন দুধ আর মধু একসাথে খেলে নাকি খুবই উপকার পাওয়া যায় l আসলেই কিন্তু অনেক উপকারই পাওয়া যায় দুধের সাথে মধু মিশিয়ে খেলে l রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে গরম দুধের সাথে এক চা চামচ মধু মিশিয়ে খেলে রাতে ঘুমটা গভীর ও শান্তির হয়। ঘুমের পর শরীর সতেজ হয়, কর্মোদ্যম ফিরে পাওয়া যায়। ২ চা চামচ মধু ১ গ্লাস গরম দুধের সাথে সকালে ও সন্ধ্যায় খেলে সর্দি কাশি দূর হয়। মধুকে চিনির সাপ্লিমেন্ট হিসেবে দুধের সাথে খেলে মিষ্টির অভাব মিটে অথচ বাড়তি ক্যালরিও যোগ হয় না l মধুর মধ্যে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টিফাংগাল উপাদান। দুধের মধ্যে রয়েছে ভিটামিন এ, বি, ডি। রয়েছে ক্যালসিয়াম, প্রাণিজ প্রোটিন ও ল্যাকটিক অ্যাসিড। দুধ ও মধু যখন একসঙ্গে মেশানো হয়, এটি আরো স্বাস্থ্যকর হয়ে ওঠে। গরম দুধ ও মধু একসঙ্গে খেলে স্নায়ুর ওপর ভালো প্রভাব ফেলে। এটি মানসিক চাপ কমাতেও সাহায্য করে। মনোযোগ বাড়াতেও সাহায্য করে l অনেকে দুধ খেয়ে হজম করতে পারেন না, কিন্তু এর সাথে মধু মিশিয়ে নিলে তা হজমে দারুন সহায়ক l হাড়ের গঠনে এবং হাড়কে সুরক্ষিত করতেও এর ভূমিকা অপরিসীম l চেহারার লাবন্যতা এবং তারুণ্য ধরে রাখার জন্য এই পানীয় যুগ যুগ ধরে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। তবে, যাদের যাদের ডায়াবেটিস বা অন্য কোনো অসুখের জন্য চিনি খাওয়া নিষেধ, তাদের মধু খাওয়ার ব্যাপারেও সচেতন হওয়া প্রয়োজন, ডাক্তারের সাথে কনসাল্ট করেই তবে খাওয়া উচিত l

নাবিক সিনবাদ  নিজেকে নিয়ে লিখতে ইচ্ছুক নই...

গুরু

মধুর মধ্যে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টিফাংগাল উপাদান। দুধের মধ্যে রয়েছে ভিটামিন এ, বি, ডি, ক্যালসিয়াম, প্রাণিজ প্রোটিন ও ল্যাকটিক অ্যাসিড। সুতরাং স্বাভাবিক ভাবেই যখন যখন দুধ ও মধু যখন একসঙ্গে মেশানো হয়, এটি আরো স্বাস্থ্যকর হয়ে ওঠে। বিজ্ঞ মুরব্বীদের ভাষ্যমতে, গরম দুধ ও মধু একসঙ্গে খেলে স্নায়ুর ওপর ভালো প্রভাব ফেলে। এটি মানসিক চাপ কমাতে সাহায্য করে। মানসিক চাপ বেশি থাকলে দিনে দুবার এই মিশ্রণ খাওয়ার পরামর্শ দেন। আবার এটাও বলে থাকেন যে দুধের মধ্যে মধু মিশিয়ে ঘুমের এক ঘণ্টা আগে খেলে এটি মস্তিষ্কের ওপর ভালো প্রভাব ফেলে। মধু মস্তিষ্ককে শিথিল করে এবং ভালো ঘুমে সাহায্য করে। মধু মস্তিষ্কে ভালো প্রভাব ফেলে। আর দুধ মস্তিষ্ককে কর্মক্ষম রাখতে সাহায্য করে। দুধ ও মধুর মিশ্রণটি মনোযোগ বাড়াতেও সাহায্য করে।


অথবা,