Preview
প্রশ্ন করুন
রিলেটেড কিছু বিষয়

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

Preview খাটি মধু চেনার উপায় কি?

*মধু* *খাটিমধুচেনারউপায়*
( ১০ টি উত্তর আছে )

( ২৪,১০১ বার দেখা হয়েছে)

অনুপ  অদ্ভুত!!!

বিশারদ

কয়েকটি পরীক্ষা রয়েছে.........//১) একটি গ্লাসে পানি নিন।তারপর তার মধ্যে এক চামচ মধু দিন। যদি মধু পানির সাথে মিশে যায় তাহলে মধুতে ভ্যাজাল আছে ।আর যদি মধু গুলো পানির সাথে গলে না গিয়ে এক জায়গায় জড় হয়ে থাকে তাহলে সেটি খাটি মধু। ২)একটি মোমবাতি নিন। মোমবাতির সলতে তে মধু লাগিয়ে মোমবাতি টি জ্বালানোর চেষ্টা করুন ,যদি মোমবাতি টি ভাল ভাবে জ্বলে তাহলে মধুটি খাঁটি আর যদি ভাল ভাবে না জ্বলে তাহলে বুঝতে হবে মধুটি তে ভ্যাজাল আছে। ৩) একটি ব্লটিং কাগজ নিন, এবং তাতে কয়েক ফোঁটা মধু ফেলুন, যদি কাগজ মধু শুষে নেয় তাহলে মধুটি তে ভ্যাজাল আছে আর যদি কাগজের উপর মধু ফোঁটা আকারে রয়ে যায় তাহলে মধুটি খাঁটি।

রিনি  আমার একটা টুনটুনি পাখি আছে.

মহাগুরু

সুন্দরবন এ যারা মধু সংগ্রহ করেন তাদের "মৌআল" বলে, আমরা অনেকেই জানি..সৌভাগ্য হয়েছিল এদের নিয়ে কাজ করার..উনাদের কাছ থেকেই জেনেছি, দুটি খুব সহজ পদ্ধতি...১. খাটি মধুতে কখনো পিপড়া লাগবেনা..২. ফ্রিজে মধু রেখে দিলে যদি তলানিতে চিনির মত দানা বাধে তবে তা খাটি মধু নয়...ধন্যবাদ...

আফিয়া আঞ্জুম তামান্না  I am feeling for the air;- A dim capacity for wings- Degrades the Dress I wear......

গুরু

অনেকভাবে পরিক্ষা করে খাঁটি মধু চিনে নেয়া যায়। যে কোনো একটি বা একাধিক চেষ্টা করে দেখতে পারেন- এক টুকরা কাগজের মধ্যে কয়েক ফোঁটা মধু নিন। তারপর যেখানে পিঁপড়া আছে সেখানে রেখে দিন ।পিঁপড়া যদি মধুর ধারে কাছে না ঘেসে তবে তা খাঁটি মধু। আর পিঁপড়া যদি তা পছন্দ করে তবে মধুতে ভেজাল আছে। সমান অনুপাতে মধু এবং মেথিলেটেড স্পিরিট মিশ্রিত করে নাড়াতে থাকুন। খাঁটি মধু দ্রবীভুত না হয়ে তলনীতে জমা হবে। আর ভেজাল মধু দ্রবীভূত হয়ে মেথিলেটেড স্পিরিটকে মিল্কি করবে। একটি কটন উইক নিয়ে এর এক প্রান্তকে মধুর মধ্যে ডুবিয়ে নিন। তারপর উঠিয়ে হালকা শেক করে নিন। একটি মোমবাতি জ্বালিয়ে বা লাইটার জ্বলিয়ে তা আগুনের শিখায় ধরুন। যদি তা জ্বলতে থাকে তবে মধু খাঁটি আর যদি না জ্বলে তবে মধুতে পানি মেশানো আছে। যদি মধুতে অল্প পরিমাণ পানি মেশানো থাকে তবে কটন উয়িক জ্বলতে থাকবে কিন্তু ক্র্যাকলিং সাউন্ড শোনা যাবে। একটুকরা সাদা কাপড়ের উপর সামান্য পরিমাণ মধু নিন এবং এবং কিছুক্ষন পর কাপড়টি ধুয়ে নিন। ধোয়ার পর কাপড়টিতে যদি কোন দাগ থাকে তবে মধুতে ভেজাল আছে। আর যদি কোন দাগ না থাকে তবে মধু খাঁটি । একটি কাঁচের বা সাদা রংয়ের বোলের মধ্যখানে দেড় থেকে দুই চা চামচ মধু নিন। তারপর বোলের চারদিক দিয়ে ধীরে ধীরে ঠান্ডা পানি ঢালতে থাকুন। যখন পানি মধুকে ঢেকে ফেলবে তখন পানি ঢালা বন্ধ করুন। তারপর বোলটিকে তুলে ধরে ঘড়ির কাঁটার বিপরীত দিকে দুই মিনিট ধরে ঘুরাতে থাকুন। খাঁটি মধু এই মুভমেন্টের পরেও পানিতে দ্রবীভূত হবে না এবং হেক্সাগোনাল আকৃতি ধারণ করবে যা দেখতে প্রায় হানি কম্ব এর মত। মধু ফ্র্রিজের মধ্যে রেখে দিন । খাঁটি মধু জমবে না । ভেজাল মধু পুরাপুরি না জমলেও জমাট তলানী পড়বে । অল্প পরিমাণ মধু চোখের ভেতরে দিন। যদি মধু খাঁটি হয় তবে প্রথমে চোখ জ্বালাপোড়া করবে ও চোখ থেকে পানি বের হবে এবং খানিক পরে চোখে ঠান্ডা অনুভূতি হবে।(এই পরীক্ষায় অনুৎসাহিত করছি)

অবশেষে আমি  ভাবতে বসেছি

গুরু

একটা প্রচলিত পদ্ধতি হলো .. একটুখানি মধু দুই হাতের তালুতে নিয়ে জোরে জোরে ঘসলে যদি তালু খুব দ্রুত গরম হয়ে যায় তাহলে বুঝতে হবে ওটা খাটি মধু |

শুভ্র  তখন, কে বলে গো সেই প্রভাতে নেই আমি?

গুরু

একটি বিশেষজ্ঞ মৌমাছি দিয়ে পরীক্ষা করানো...

Golam Zakaria  

জ্ঞানী

খাটি মধু চেনার উপায়

১. এক গ্লাস পানিতে এক চামচ পরিমাণ মধু দিন। তারপর আস্তে আস্তে গ্লাসটি নাড়া দিন। মধু পানির সঙ্গে মিশে গেলে নিশ্চিত হবেন সেটা ভেজাল মধু। আর মধু যদি ছোট পিণ্ডের মতো গ্লাসের পানিতে ছড়িয়ে যায়, তাহলে বুঝবেন সেটা খাঁটি মধু।

২. মধুর আসল-নকল নির্ধারণ করতে এক টুকরো কাগজে অল্প একটু মধু লাগিয়ে নিন। এবার যেখানে পিঁপড়া আছে সেখানে রেখে দিন। তারপর অপেক্ষা করতে থাকুন। মধুতে যদি পিঁপড়া ধরে তাহলে বুঝে নেবেন আপনার কেনা মধুতে ভেজাল আছে।

৩. পরিস্কার সাদা কাপড়ে অল্প একটু মধু লাগিয়ে শুকিয়ে নিন। একটু পর কাপড়টি ধুয়ে ফেলুন। কাপড়ে দাগ থেকে গেলে বুঝতে হবে এই মধু নকল। আর কাপড়ে দাগ না থাকলে সেটা খাঁটি মধু।

পথহারা  

গুণী

দানা বাধারা বিষয়টি সুন্দরবনের মধুর ক্ষেত্রে প্রযোজ্য কিন্তু সকল মধুর ক্ষেত্রে নাও হতে পারে। বিশেষ করে বর্ষার মৌসুমে যে মধু সংগ্রহ করা হয় তাতে চিনি জমবেই কারণ বর্ষার মৌসুমে পর্যাপ্ত ফুল না থাকায় মৌমাছিকে খেতে দিয়ে বাঁচিয়ে রাখতে। তাই ঐ মৌসুমের মধুতে চিনি জমাটা স্বাভাবিক। আবার সরিষা ফুলের মধুতেও দানা জমে। তাই আমার মনে হয় কোন বিষয়কে নিশ্চিতভাবে মধুর ভেজাল হওয়ার কারণ উল্লেখ করাটা ঠিক হবে না।

L0ve G0st 420  Lоаdіпg.. ██████████████] 99%

পন্ডিত

মধু কাগজ এ লাগাবেন এর পর আগুন ধরাবেন ....... যদি আগুন ভালো কইরা ধরে তাহলে বুজবেন মধু ভালো ..... আমার কাসে নিজেদের গাসের মধু আসে তাতে আগুন ধরে ............. আর বাজার এর মধু তে ধরে না তাই বুজলাম .............

www.purebd.com এর  মধু ১০০% খাঁটি  খেয়ে দেখতে পারেন

Bulbul Ahmed  Head of Operations, Brand Bangla

গুণী

দীঘদিন মধু নিয়ে কাজ করার অভিঞ্জতা থেকে বলতে পারি যে. খাটি মধু চেনার কোন সঠিক পদ্ধতি আজো আবিষ্কার হয়নি, তবে হ্যা মধুতে কোন ধরনের উপাদান কতটুকু আছে সেটা আপনি বার করতে পারবেন অবশ্যই।সরিশাফুলের মধু যদি ফ্রিজের মধ্যে রাখেন তবে ১দিন পরেই তা জমাট অবস্থায় পাবেন, আবার প্রাকৃতিক মধুতে ২০ শতাংশ পর্যন্ত পানি থাকেতে পারে আর পানির উপস্থিতিতে আগুন কিভাবে জালাবেন?? ্আবার মধুর ঘনত্বের উপর নির্ভর করে সেটি পানিতে কত সময়ের মধ্যে মিশবে, আর মধুর ঘনত্ব নির্ভর করে মৌমাছির চাকটি আপনি কতদিনের মধ্যে ভেঙ্গে মধু সংগ্রহ করছেন তার উপর। এখন যদি মৌমাছির চাকটি পরিপূর্ণ সময় হওয়ার আগেই ভেঙ্গে মধু সংগ্রহ করেন তাহলে সেখান থেকে সংগ্রহ করা মধুর ঘনত্ব অবশ্যই কম হবে তাই বলে কি সেটিকে খাঁটি মধু বলবেন না?

তাই খাঁটি মধু চেনার জন্য অবশ্যই আপনাকে কারো উপর বিশ্বাস রাখতে হবে নতুবা নিজে উপস্থিত থেকে মৌচাক ভেঙ্গে মধু সংগ্রহ করতে হবে।


অথবা,