প্যারেন্টিং

চটপোস্ট

★ছায়াবতী★: মনোবিজ্ঞানীদের গবেষনায় দেখা যায় যেসব ছেলেমেয়ে মা-বাবার পর্যাপ্ত আদর-যত্ন পায় না, তারা প্রায়ই কুসঙ্গে পড়ে মাদকাসক্ত হয় এবং এর জন্য তিনটি বিষয়কে তারা চিহ্নিত করেছেন : Friend, Fun ও Frustration। আসলে সন্তান ‘রেইজিং’ বা পালন খুবই কঠিন। টিনএজাররা খুবই আবেগপ্রবণ এবং তাদের সমস্যাবলী বেশির ভাগই মা-বাবার অজানা থাকে। এর ফলে তাদের Wonder age এবং মা-বাবার Real world-এর মাঝে সৃষ্টি হয় বিস্তর ব্যবধান এবং গড়ে ওঠে অদৃশ্য এক দেয়াল। যা ভাঙা অনেক কষ্টকর হয়ে যায়(চিন্তাকরি)(চিন্তাকরি)

★ছায়াবতী★: একজন সুশিক্ষকের সৎগুণ ছাত্রছাত্রীর অন্তরে স্বর্গীয় জ্যোতির মতোই বিকিরণ করে চলে আজীবন। শাশ্বত মূল্যবোধ যেমন- সহানুভূতি, সহমর্মিতা, স্নেহ-মমতা-ভালোবাসা, সহিষ্ণুতা, করুণার আলোড়ন, সংবেদনশীলতা, নারী জাতির প্রতি শ্রদ্ধা, ঔদার্য, ইনটিগ্রিটি, দয়া, ক্ষমা, নৈতিক ও সামাজিক মূল্যবোধ, দেশপ্রেম ও জাত্যাভিমান প্রভৃতি একজন হৃদয়বান শিক্ষক কোমলমতি বিদ্যার্থীদের হৃদয়ে গভীরভাবে প্রোথিত করে দেন তার সহজাত কথাবার্তা, আচার-আচরণ, চালচলন, কার্যকলাপ ও উদাহরণের মাধ্যমে। মা-বাবার যেমন দায়িত্ব আছে তাদের সন্তানদের প্রতি, শিক্ষকেরও তেমনি দায়িত্ব আছে ছাত্রছাত্রীর প্রতি।(খুকখুকহাসি)(খুকখুকহাসি)

দীপ্তি: যুক্তরাষ্ট্রের চিলড্রেনস হসপিটাল অব উইসকনসিনের চিকিৎসক ডাক্তার কেনেথ এল গ্রিজেল তাঁর বৈজ্ঞানিক এক নিবন্ধে বলেন, ‘কৈশোরে মানসিক অশান্তির অন্যতম একটি কারণ হচ্ছে মা-বাবার কোনো বিষয় নিয়ে “ঘ্যানঘ্যান” করা। ’ তাই সন্তানের সাথে অতিরিক্ত কোন বিষয় নিয়ে ঘ্যানঘ্যান করবেন না। মনে রাখবেন, আপনার সন্তানের সমস্যা-দ্বিধা-অস্বস্তি আপনাকেই প্রথমে বুঝতে হবে। এ জন্য সন্তানের সঙ্গে যতটা সম্ভব বন্ধুসুলভ আচরণ করার চেষ্টা করুন।

Khaleda Bithi: আমার ৪ বছরের মেয়ে সব বিষয়ে প্রচণ্ড জেদ করে, কথা শুনতে চায়না খুব একটা। ও ওর ইচ্ছে অনুযায়ী চলতে চায় সব সময়। কিন্তু মা বাবা হিসেবে ওকে আমরা সব সময় ওর ইচ্ছে মত চলতে দিতে পারিনা। কারণ ওর এখনো ভালো মন্দ বোঝার বোধ গড়ে উঠেনি। ও জেদ করতে থাকে আর প্রায়ই শারীরিক শাস্তির শিকার হয়। পরে খুব খারাপ লাগে ছোট্ট মেয়েটার জন্য। কিভাবে নিজেদের নিয়ন্ত্রণ করবো বুঝিনা।

নাহিন: ছোটদের জনপ্রিয় কার্টুন চরিত্র ডোরেমন নিয়ে আসলো গানে গানে শিক্ষামুলক অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ https://play.google.com/store/apps/details?id=jp.smarteducation.dorarhythmpadww&hl=en

মেঘ: খুব ভাল লাগে আমার তখন , যখন দেখি যে কোন বাবুর আঙুল দিয়ে তার বাবার হাতের মুঠো ধরে রাখে । কি যে প্রশান্তি সেই আশ্রয়ে তা তৃতীয় কেউ পাবেনা । যখন দেখি তখন নিজের অজান্তেই নিজের হাতের মুঠোয় সেই ছোট্ট আঙুল মিস করি।

দীপ্তি: [রাজামশাই-ক্যাবলাইছি] শিশুকে পারিবারিক ও সামাজিকভাবে যেসব বিষয়ে শেখানো হয়, তার যথাযথ প্রতিফলন থাকতে হবে মা-বাবার মধ্যেই। তাই বাচ্চার সঠিক বিকাশের কথা চিন্তা করে বাবা-মাকে আদর্শবান ও দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে।

নিপু: নিজের সন্তানকে বেশী দিন নিজের কাছ থেকে দূরে রাখবেন না, খুব খারাপ কাজ করলেও ওকে ক্ষমা করে দিন, জরিয়ে ধরুন আদর করুন দেখবেন ও ভালো হয়ে গেছে। কেন ক্ষমা করবেন? কারন "মানুষ ভুল করে আর সুযোগ পেলে তা সুধরে নেবার ক্ষমতা ও তার আছে" তাই সুযোগ করে দিন।