জীবনী

জীবনী নিয়ে কি ভাবছো?

দীপ্তি: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 ভাষা শহীদদের জীবনী সমন্ধে বিস্তারিত জানতে চাই।

উত্তর দাও (২ টি উত্তর আছে )

.
*ভাষাশহীদ* *জীবনী* *ইতিহাস*

দীপ্তি: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 সংক্ষিপ্ত পরিসরে সৈয়দ শামসুল হকের জীবনী সমন্ধে কেউ জানাতে পারেন কি?

উত্তর দাও (২ টি উত্তর আছে )

.
*সৈয়দশামসুলহক* *লেখক* *জীবনী* *ব্যক্তিত্ব*

দীপ্তি: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 'দ্য গ্রেটেস্ট' মোহাম্মদ আলীর জীবনী সমন্ধে বিস্তারিত জানতে চাই l

উত্তর দাও (৪ টি উত্তর আছে )

.
*মোহাম্মদআলী* *জীবনী* *বক্সার* *মুষ্টিযোদ্ধা*

শ্যামল মিত্র: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সংক্ষিপ্ত জীবনী সম্পর্কে জানতে চাই্।

উত্তর দাও (৩ টি উত্তর আছে )

.
*বঙ্গবন্ধু* *শেখ-মুজিবুর-রহমান* *জীবনী*

বিডি আইডল: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 সাবেক প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ মনসুর আহমেদকে কেন ক্যাপ্টেন বলা হয় ? উনার সম্পর্কে জানতে চাই।

উত্তর দাও (১ টি উত্তর আছে )

.
*প্রধানমন্ত্রী* *ক্যাপ্টেনমনসুর* *জীবনী* *সাধারনজ্ঞান*

ইমরান নাজির লিপু: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 কবি সিকান্দার আবু জাফরের জীবন ও সাহিত্যকর্ম সম্পর্কে জানতে চাই।

উত্তর দাও (১ টি উত্তর আছে )

.
*কবি* *সিকান্দার-আবু-জাফর* *লেখক* *জীবনী*
ছবি

খেলাধুলা: ফটো পোস্ট করেছে

পর্দা উঠলো 'মাশরাফি'র

মাশরাফি বিন মুর্তজার জীবন উপন্যাসের মতোই ঘটনাবহুল ও রোমাঞ্চকর। যে কোনো পাঠকের জন্য সে এক দারুন সুপাঠ্য হয়ে ওঠার কথা। সেই মাশরাফির জীবন নিয়ে প্রকাশিত হল বই। তার নাম – ‘মাশরাফি’। লিখেছেন দেশের শীর্ষস্থানীয় ক্রীড়া সাংবাদিক দেবব্রত মুখোপাধ্যায়। সোমবার পর্দা উঠলো 'মাশরাফি'র। খুলনার সিটি ইন হোটেলে সকাল ১১টায় জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের উপস্থিতিতে বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন জাতীয় দলের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাতুরুসিংহে এবং মাশরাফির বাবা-মা। এ ছাড়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাশরাফির পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা। অনুষ্ঠানে জাতীয় দলের পক্ষে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও তামিম ইকবাল। এ ছাড়া জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাহমুদ সুজনসহ সাবেক ক্রিকেটাররা অংশ নেন অনুষ্ঠানে। ক্রীড়া সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম রনির সঞ্চালনায় এই অনুষ্ঠানটি একটু ভিন্ন ভঙ্গিতে, অনেকটাই ঘরোয়া ভঙ্গিতে আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশের ক্রিকেট সমর্থকদের সংগঠন ‘বাংলাদেশ ক্রিকেট সাপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন’ (বিসিএসএ) তাদের প্রথম প্রকাশনা হিসেবে বের করছে বইটি। প্রায় পাঁচ’শ পৃষ্ঠার এই বইটি পাওয়া যাবে যে কোনো বইয়ের দোকানে, অনলাইন শপিং মল আজকের ডিলে, চেইন শপিং মল স্বপ্ন-এর আউটলেটে। এ ছাড়া বইমেলায় ঐতিহ্য-এর স্টলে থাকছে বই।

*মাশরাফির* *জীবনী* *বই*

বিডি আইডল: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 জাতীয় স্মৃতিসৌধের স্থপতি কে ? তার জীবনী সম্পর্কে জানতে চাই।

উত্তর দাও (১ টি উত্তর আছে )

.
*স্মৃতিসৌধ* *স্থপতি* *জীবনী* *জাতীয়স্মৃতিসৌধেরস্থপতি* *সৈয়দমইনুলহোসেন*

ইমরান নাজির লিপু: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 চিত্রশিল্পী ভিনসেন্ট ভ্যান গগ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চাই।

উত্তর দাও (৩ টি উত্তর আছে )

.
*ভ্যানগগ* *চিত্রশিল্পী* *জীবনী*

দীপ্তি: একটি বেশব্লগ লিখেছে

ভারতরত্ম পুরস্কার পাওয়া ‘ভারতের মিসাইল ম্যান’খ্যাত এই পরমাণু বিজ্ঞানীর পুরো নাম আবুল পাকির জয়নুল-আবেদিন আবদুল কালাম। আবুল পাকির জয়নুল আবেদিন আব্দুল কালাম ; (১৫ অক্টোবর, ১৯৩১ - ২৭ জুলাই, ২০১৫) একজন ভারতীয় বিজ্ঞানী যিনি ২০০২ থেকে ২০০৭ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত ভারতের একাদশ রাষ্ট্রপতি থিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। কালাম মাদ্রাজ প্রেসিডেন্সির রামেশ্বরম নামক স্থানে জন্মগ্রহণ করেন ও বড় হয়ে ওঠেন। পদার্থবিজ্ঞান ও বিমান প্রকৌশলবিদ্যা সম্বন্ধে অধ্যয়ন করে তিনি পরবর্তী চল্লিশ বছর রক্ষা অনুসন্ধান এবং বিকাশ সংগঠন এবং ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থায় বিজ্ঞানী ও বিজ্ঞান প্রশাসকের দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ভারতের অন্তরীক্ষ কর্মসূচী ও সামরিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রকল্পে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র সংক্রান্ত তাঁর গবেষণার কারণে তাঁকে ভারতের ক্ষেপনাস্ত্র মানব হিসেবে অভিহিত করা হয়ে থাকে। তিনি ১৯৯৮ খ্রিস্টাব্দে সংগঠিত ভারতের পোখরান-২ ক্ষেপনাস্ত্র পরীক্ষার ব্যাপারেও গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন।  ২০০২ খ্রিস্টাব্দে ভারতীয় জনতা পার্টি ও ভারতের জাতীয় কংগ্রেসের সমর্থনে কালাম ভারতের একাদশ রাষ্ট্রপতি হিসেবে নির্বাচিত হন এবং পরবর্তী পাঁচ বছর এই পদে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি পদ্মবিভূষণ, পদ্মভূষণ ও ভারতরত্ন সহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সম্মান লাভ করেন। 


আবুল পাকির জয়নুল-আবেদিন আব্দুল কালাম ১৯৩১ খ্রিস্টাব্দের ১৫ই অক্টোবর ব্রিটিশ ভারতের মাদ্রাজ প্রেসিডেন্সির অন্তর্গত রামেশ্বরম নামক স্থানে একটি তামিল মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা জয়নুল-আবেদিন একজন নৌকার মালিক এবং মাতা আশিয়াম্মা একজন গৃহবধূ ছিলেন। তিনি খুব গরীব পরিবারের সন্তান ছিলেন এবং খুব অল্প বয়সেই তাকে জীবিকার প্রয়োজনে বিভিন্ন পেশায় কাজ করতে হয়েছিল। বিদ্যালয়ে ছুটির পর তিনি সংবাদপত্র বিক্রি করে রোজগার করতেন। গণিতশাস্ত্রে আগ্রহী উজ্জ্বল ও কর্মঠ কালাম বিদ্যালয়ে একজন মধ্যম মানের ছাত্র ছিলেন। রামনাথপুরম সোয়ার্জ ম্যাট্রিকুলেশন বিদ্যালয় থেকে শিক্ষা সমাপন করে ১৯৫৪ খ্রিস্টাব্দে কালাম মাদ্রাজ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে তিরুচিরাপল্লীতে অবস্থিত সেন্ট জোসেফ'স কলেজ থেকে পদার্থবিদ্যায় স্নাতক হন। 

১৯৫৫ খ্রিস্টাব্দে তিনি মাদ্রাজ ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি থেকে বিমান প্রকৌশলবিদ্যা সম্বন্ধে শিক্ষালাভ করেন। এই প্রতিষ্ঠানে পড়ার সময় তাঁর পঠনপাঠনের অগ্রগতিতে অখুশি ডিন তিনদিনের মধ্যে প্রকল্প শেষ না করলে বৃত্তি বন্ধ করে দেওয়ার ভয় দেখালে কালাম নির্দিষ্ট দিনের মধ্যে তাঁর প্রকল্প সম্পন্ন করেন। আটটি পদের জন্য পরীক্ষায় নবম স্থান লাভ করায় ভারতীয় বিমান বাহিনীতে যুদ্ধবিমানের চালক হিসেবে তাঁর স্বপ্ন খুব অল্পের জন্য হাতছাড়া হয়। কর্মজীবনে তিনি ভারতের প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থায় (ডিআরডিও) বিজ্ঞানী ও ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থায় (আইএসআরও) বৈজ্ঞানিক প্রশাসক পদে দীর্ঘদিন কাজ করেন।

১৯৯৮ সালে ভারতের প্রথম সফল পারমাণবিক পরীক্ষা পোখরান-২ এ তিনি ছিলেন মুখ্য অবদানকারী।

কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ ভারত সরকার এপিজে আবদুল কালামকে ১৯৮১ সালে পদ্ম ভূষণ, ১৯৯০ সালে পদ্ম বিভূষণ ও ১৯৯৭ সালে ভারত রত্ন উপাধি দেয়। এই তিন জাতীয় উপাধি ছাড়াও জাতীয় স্বার্থে ও মানব কল্যাণে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য তিনি আরও অনেক দেশীয় ও আন্তর্জাতিক পদক-সম্মানে ভূষিত হন।

২০১৫ খ্রিস্টাব্দের ২৭শে জুলাই মেঘালয়ের শিলং শহরে অবস্থিত ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্ট নামক প্রতিষ্ঠানে বসবাসযোগ্য পৃথিবী বিষয়ে বক্তব্য রাখার সময় ভারতীয় প্রমাণ সময় সন্ধ্যে ৬:৩০ নাগাদ হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হন। তাঁকে বেথানী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়, যেখানে সন্ধ্যে ভারতীয় প্রমাণ সময় ৭:৪৫ নাগাদ তাঁর মৃত্যু ঘটে। ভারতের সাবেক প্রেসিডেন্ট এপিজে আবদুল কালাম আর নেই। সোমবার (২৭ জুলাই) সন্ধ্যায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয়। 

মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিলো ৮৪ বছর। সাবেক এই প্রেসিডেন্টের পরলোকগমনে ভারত সরকার সাত দিনের জাতীয় শোক ঘোষণা করেছে। (সংকলিত) 




*আব্দুলকালাম* *জীবনী*

উদয়: একটি নতুন প্রশ্ন করেছে

 "প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার" এই গুনীজন সমন্ধে জানতে চাই l

উত্তর দাও (৩ টি উত্তর আছে )

*ব্যক্তিত্ব* *জীবনী* *নারীশক্তি*

ওম: একটি বেশব্লগ লিখেছে

আজ ২০ এপ্রিল, মহান নেতা বা খুনি হিটলারের জন্মদিন তার পুরো নাম এডলফ হিটলার তিনি ১৮৮৯ সালে ২০ এপ্রিল অস্ট্রিয়া ব্যাভেরিয়ার মাঝামাঝি ব্রনাউতে জন্ম গ্রহণ করেন তার বাবার নাম য়ালুই মার নাম ক্লারা | ছেলেবেলা থেকেই হিটলার একগুঁয়ে, জেদি আর রগচটা সামান্য ব্যাপারেই রেগে উঠতেন অকারণে শিক্ষকদের সঙ্গে তর্ক করতেন হিটলার এর স্বপ্ন ছিল একজন আর্টিস্ট হওয়ার ১৯০৩ সালে হিটলারের বয়স যখন ১৩ তার বাবা মারা যায়| ১৯০৭ ১৯০৮ সালে পরপর দুবার ভিয়েনা একাডেমি অফ আর্ট ভর্তির এপ্লিকেশন করেও সেখানে ভর্তি হতে পারেননি| ১৯০৮ সালের শেষের দিকে তার মা মারা যাওয়ার পর চার বছর ভিয়েনার রাস্তায় রাস্তায় অর্থ উপার্জনের জন্য পোস্ট কার্ড বিক্রি করেছেন| পড়াশোনাতে যে তার মেধা ছিল না এমন নয়  অর্থের অভাবেই তাকে স্কুল ছেড়ে দিতে হয়

কেউ নিশ্চিতভাবে বলতে পারবে না  কেন হিটলার ইহুদি বিদ্বেষী ছিলেন | তার মার মৃত্যুকালীন চিকিৎসক  একজন ইহুদি ডাক্তার ছিলেন এবং তার কাছে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মায়ের মৃত্যু হয় এই কারণেই কি তিনি ইহুদিদের  সহ্য করতে পারতেননা | হিটলারের জিবনের স্মরণীয় সেই ঘটনাগুলকে জানতে বিস্তারিত পড়ুন বিশ্বনেতা হিটলার

*হিটলার* *জীবনী* *বিশ্বনেতা* *জানাঅজানা*

বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

...বিস্তারিত

QA

★ ঘুরে আসুন প্রশ্নোত্তরের দুনিয়ায় ★