বেশতো সাইট টিতে কোনো কন্টেন্ট-এর জন্য বেশতো কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়। কনটেন্ট -এর পুরো দায় যে ব্যক্তি কন্টেন্ট লিখেছে তার।

হাটেরঅভিজ্ঞতা

[বাকের-হাওয়ামেউড়তাযায়ে]বছর বছর বাড়ছে অনলাইনে পশু কেনাবেচা। এ প্রক্রিয়ায় নির্ভেজাল উপায়ে পশু কিনতে পেরে ক্রেতারা যেমন স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন তেমনি হাটে না নিয়েই পশু বিক্রি করে বিক্রেতারাও বাড়তি সুবিধা পান। আর তাই দিন দিন ফেসবুকের মতো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বা কেনাবেচার সাইটে পশু বিক্রি জমে উঠছে ঈদকে সামনে রেখে। এসব ভার্চুয়াল হাটের অ্যাডমিনরা গরু কেনা-বেচা, হাট বা এগ্রো ফার্ম থেকে ক্রেতার বাসায় পৌঁছে দেয়া থেকে শুরু করে যাবতীয় কাজের দায়িত্বও নিচ্ছেন।

বেশকোডঃ শৈশব

উত্তরটি দিয়েছে - Asem Ahmad Arman

বেশকোডঃ শৈশব

উত্তরটি দিয়েছে - Abeer Rouf SaFa

বেশকোডঃ শৈশব

উত্তরটি দিয়েছে - এম ইয়াসিন আরাফাত

বেশকোডঃ শৈশব

উত্তরটি দিয়েছে - কামাল হোসাইন

বেশকোডঃ শৈশব

উত্তরটি দিয়েছে - Tanvir Ahmed Rifat

বেশকোডঃ শৈশব

উত্তরটি দিয়েছে - Shahidul Islam Nahid

বেশকোডঃ শৈশব

উত্তরটি দিয়েছে - SHARIFUL ISLAM (SP)

বেশকোডঃ শৈশব

বেশকোডঃ শৈশব

বেশকোডঃ শৈশব

ছবিটি দেখে এত ভালো লাগলে যে শেয়ার না করে পারলাম না, ছবিটি তুলেছেন ফটোগ্রাফার তানভীর আহাম্মেদ, গতকাল শনিবার কুড়িল-পূর্বাচল সড়কের পুলিশ হাউজিং এলাকা থেকে তোলা। (গরুনিয়েযাওয়া) (গরুরগুঁতা)

ছোটবেলা হাটের অভিজ্ঞতা

হাটে যাওয়া হয়না সেই ৫ বছর থেকে। আগে আমরা ভাইবোন দুজনই যেতাম বাবার সাথে। এখন শুধুমাত্র ইমন আর বাবা এই দুজনই যায়, এবার ও তারা দুজনই যাবে, আগের গরুর হাটের অভিজ্ঞতা ছিল অনেক মজার আমরা দুজন ইমন আর আমি তাল মিলিয়ে খাওয়ার ধান্দায় থাকতাম বাবা একাই গরু কিনতেন আমাদের খোলামেলা কোন স্থানে রেখে সেই দিন গুলো খুব মিস করি আহারে

http://www.banglamail24.com/news/2014/10/04/id/75132/

অজ্ঞানপার্টির খপ্পরের পড়ে ১৫ জন গরু ব্যবসায়ী ১ লাখ ৫৪ হাজার টাকা খুইয়েছেন। শুক্রবার রাত ১০টায় রাজধানীর মিরপুরের রূপনগর হাউজিং বেড়িবাঁধ এলাকায় অবস্থিত কোরবানির পশুর হাটে এ ঘটনা ঘটে। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা ... (সম্পূর্ন)

পূজা আর ঈদের আনন্দে উত্তাল সারা দেশ। আনন্দে মাতোয়ারা সমগ্র জাতি, আনন্দিত আমরা সবাই।আসুন আমরা লিখি *পূজারখাবার* *ঈদরেসিপি* *অতিভোজ* *পাঞ্জাবি* *পূজারসাজ* *ঈদফ্যাশন* *হাটেরঅভিজ্ঞতা* *কোরবানীঈদ* স্টারড ওয়ার্ড দিয়ে আর লিখার মাধ্যমে আনন্দ ছড়াই সবার মাঝে

আচ্ছা, আপনাদের সমস্যা কি? শুরু থেকেই শুধু বড়, বড় আর বড় গরু কেনার চেষ্টা। গরু মানে কি শুধুই বড়? গরু ছোট হয়, বড় হয়, চিকনা হয়।গরুটা বড় নয়, ঈদের আনন্দ আর ত্যাগই বড়। একটু ফ্রেশ চিন্তুা করুন।

বন্ধুরা সামনে ঈদ ও পূজা দুই অনুষ্ঠান এক সাথে তাইতো আনন্দের শেষ নেই। তাই আসুন আনন্দে আনন্দে লিখি *পূজারখাবার* *ঈদরেসিপি* *অতিভোজ* *পাঞ্জাবি* *শাড়ি* *পূজারসাজ* *ঈদফ্যাশন* *হাটেরঅভিজ্ঞতা* *কোরবানীঈদ* *ঈদপূজারকেনাকাটা* ইত্যাদি স্পেশাল স্টারড ওয়ার্ড দিয়ে।

বেশতো বিজ্ঞাপন

বেশতো বিজ্ঞাপন